দুয়ারে মদ প্রকল্প মজবুত করতে নয়া উদ্যোগ

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest

বাড়ি বাড়ি মদ পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্প ভাল ভাবে চালু করতে চায় রাজ্যের আবগারি দফতর।

ইতিমধ্যেই চার সংস্থার সঙ্গে কথাবার্তা পাকা হয়ে গেলেও চুক্তির আগে আরও সংস্থা যাতে অনলাইন পরিষেবায় অংশ নেয় তা নিশ্চিত করতে চাইছে রাজ্য সরকার। আবগারি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বছরের অগস্ট মাসে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে আগ্রহী সংস্থাদের আবেদন করতে বলা হয়েছিল। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে যত সংস্থা আগ্রহ দেখায় সেগুলির মধ্যে চারটির সঙ্গে চুক্তি চূড়ান্ত হবে বলে গত জানুয়ারিতেই সিদ্ধান্ত নেয় আবগারি দফতর।

করোনাকালে বাড়ি বাড়ি অর্ডারমাফিক বিয়ার, হুইস্কি, রাম এবং দেশি মদ পৌঁছে দেওয়ার পরিষেবা এখনও কোথাও কোথাও চালু থাকলেও সেটা পুরোপুরি সক্রিয় নয়। এই পরিস্থিতিতে পাকাপাকি ভাবে বিভিন্ন ই-রিটেল সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করে এই পরিষেবা বড় আকারে চালু করতে গত বছরের ১১ অগস্ট একটি বিজ্ঞপ্তি (NIE No. BEVCO/2021/122 dated 11/08/2021) প্রকাশ করে আবগারি দফতর। আবগারি দফতরের অধীন ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট বেভারেজেস কর্পোরেশন’ (বেভকো) মদের ই-রিটেল করতে আগ্রহীদের আবেদনপত্র চেয়েছিল। সেই সব সংস্থাকেই আবেদন করতে বলা হয়েছিল, যারা অনলাইনে মদ্যপ্রেমীদের বরাত নিতে পারবেন এবং বিভিন্ন খুচরো দোকান থেকে মদ কিনে ক্রেতাদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে পারবেন। তবে এই ব্যবস্থায় একটি শর্ত দেওয়া ছিল যে, মদ বিক্রি করা যাবে শুধুমাত্র নির্দিষ্ট বয়সের উপরের ক্রেতাদেরই।

এর পরে গত ১৯ জানুয়ারি আরও একটি নির্দেশ প্রকাশ করে রাজ্য সরকার। তাতে চারটি সংস্থাকে বরাত দেওয়ার জন্য শীঘ্রই চুক্তি করা হবে।

এখন নতুন করে আবেদন জমা নেওয়া শুরু হওয়ার পিছনে কারণ নিয়ে অবশ্য মুখ খুলতে চাননি দফতরের কর্তারা। তবে একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যে সর্বত্র একই সঙ্গে মদের ই-রিটেল চালু করতে হলে যে পরিকাঠামো দরকার সেটা চারটি সংস্থার পক্ষে সম্ভব নাও হতে পারে। এর জন্যই নতুন করে আবেদন জমা নেওয়ার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি। আরও কিছু সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করা গেলে এই পরিষেবা আরও শক্তিশালী হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত পোস্ট