2022 সালের পশ্চিমবঙ্গ লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প নিয়ম 2022

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest

নতুন ভাবে ২০২২ সালে লক্ষ্মী ভাণ্ডার স্কিম সম্পর্কিত সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

যাদের প্রাথমিক আয়ের সহায়তা নেই তাই তারা তাদের দৈনন্দিন ব্যয়ের অর্থায়ন করতে পারছে না।সেই সমস্ত মানুষের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার পশ্চিমবঙ্গ লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্প চালু করেছে।এই স্কিমের মাধ্যমে, সরকার পরিবারের মহিলা প্রধানদের প্রাথমিক আয়ের সহায়তা প্রদান করতে যাচ্ছে।এই নিবন্ধটি পশ্চিমবঙ্গ লক্ষ্মী ভাণ্ডার স্কিম সম্পর্কিত সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করবে যেমন এর উদ্দেশ্য, বৈশিষ্ট্য, সুবিধা, লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প আবেদন পত্র, যোগ্যতার মানদণ্ড, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ইত্যাদি।

প্রকল্পের নামলক্ষ্মী ভান্ডার
কারা পাবেগৃহস্থ মহিলা
মা সি টা কা৫০০-১০০০ হাজার
বছরে টাকা১২ হাজার
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
আবেদন মাধ্যমদুয়ারে সরকার ক্যাম্প

লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্পের উদ্দেশ্য:-

লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্পের উদ্দেশ্য:-

এর মূল উদ্দেশ্য হল পরিবারের মহিলা প্রধানদের মৌলিক আয়ের সহায়তা প্রদান করা।  এই স্কিমের মাধ্যমে, পরিবারের মহিলা প্রধানদের 500 টাকা (সাধারণ বিভাগ) এবং 1000 টাকা (এসসি এবং এসটি বিভাগ) প্রদান করা হবে।  এই আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের নাগরিকরা তাদের দৈনন্দিন কাজকর্মের অর্থায়ন করতে পারবে।  এই প্রকল্প তাদের আত্মনির্ভরশীল করে তুলবে।  এই প্রকল্প রাজ্যের গ্রামীণ ও শহুরে অর্থনীতিকেও শক্তিশালী করবে।

লক্ষ্মীভাণ্ডারস্কিমেরসুবিধাএবংবৈশিষ্ট্য:-

পশ্চিমবঙ্গ সরকার পশ্চিমবঙ্গ লক্ষ্মী ভাণ্ডার যোজনা চালু করেছে

 এই স্কিমের মাধ্যমে পরিবারের মহিলা প্রধানকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে

 সাধারণ ক্যাটাগরির জন্য আর্থিক সহায়তা প্রতি মাসে 500 টাকা এবং এসসি এবং এসটি ক্যাটাগরির জন্য প্রতি মাসে 1000 টাকা হবে

 পশ্চিমবঙ্গের 1.6 কোটি পরিবার এই প্রকল্পের সুবিধা পাবে

 এই স্কিম 5249 টাকার একটি পরিবারের মাসিক গড় খরচ ব্যয়ের কথা মাথায় রেখে চালু করা হয়েছে

 এই স্কিমের সাহায্যে, সুবিধাভোগীর মাসিক ব্যয়ের প্রায় 10% থেকে 20% কভার করা হবে

 এই প্রকল্পের অধীনে সুবিধার পরিমাণ সরাসরি উপকারভোগীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরিত হবে

 এসসি এবং এসটি সম্প্রদায়ের সমস্ত পরিবার এই স্কিমের অধীনে আবেদন করতে পারে

 পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য 12900 কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করেছে

কারা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের আবেদন করতে পারবে?:-

আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের নাগরিক হতে বে

একজন গৃহস্থ মহিলা হতে হবে

২৫৬০ বছর বয়স মহিলা

 এসসি এবং এসটি বিভাগের সকল পরিবার এই স্কিমের আওতায় আবেদন করতে পারে

 সাধারণ শ্রেণীর জন্য, যেসব পরিবারে কমপক্ষে একজন করদাতা সদস্য আছেন তারা এই স্কিমের অধীনে আবেদন করতে পারবেন না

 যারা সাধারণ শ্রেণির নাগরিক যাদের 2 হেক্টরের বেশি জমি আছে তারা এই স্কিমের অধীনে আবেদন করতে পারবেন না

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প কি কি DOCUMENTS লাগবেঃ-

রঙিন পাসপোর্ট সাইজ ছবি
 স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের জেরক্স
 আধার কার্ডের জে রক্স
 SC/ST/ সার্টিফিকেট জেরক্স (If Any)
 ব্যাংক পাসবইয়ের প্রথম পৃষ্ঠার জেরক

Aadhar card

Caste certificate

Swasthya Sathi card

Bank account details

Passport size

Photograph Mobile number.

লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্প আবেদন করার পদ্ধতি এবং নিয়ম

লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প আবেদন এর জন্য আপনাকে দুয়ারে সরকার এর লক্ষী ভান্ডার ক্যাম্পে যেতে হবে যেতে হবে। লক্ষী ভান্ডার ক্যাম্পেইন আপনাকে একটিভ ইউনিক নাম্বারের ফর্ম দেওয়া হবে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পে আবেদনের জন্য এবং সেই ইউনিক ফরমটি ফিলাপ করে উল্লেখিত ডকুমেন্টগুলি কপি সেই ক্যাম্পে জমা দিতে হবে।দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প ছাড়া অন্য কোথা থেকে যদি লক্ষী ভান্ডার এর আবেদনপত্র সংগ্রহ করেন তাহলে আপনি লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন না অর্থাৎ লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হবেন।

2022 সালের নতুন লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্প আবেদন করার পদ্ধতি এবং নিয়ম

সম্পর্কিত পোস্ট