Krishak Bandhu Prakalpa apply online: কৃষকবন্ধু প্রকল্প-এ এবং পেয়ে যান বার্ষিক ১০ হাজার টাকা

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest

Examsbharat.com এর সকল পাঠকদের জানাই সুস্বাগত। কৃষকবন্ধু প্রকল্পের নতুন আপডেট।

Krishak Bandhu Prakalpa 2022: কৃষকবন্ধু প্রকল্প হলো পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের একটি বীমা প্রকল্প , যাতে কৃষক এবং ভাগচাষীরা ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বীমা পেয়ে যাবেন। এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো কৃষকদের ব্যাংকে কিছু টাকা সরাসরি সাহায্য দেওয়া, যাতে কৃষকরা তাদের প্রয়োজনীয় কৃষিজ সার, বীজ, কীটনাশক কিনে ভালোমতো চাষবাস করতে পারেন। কৃষকবন্ধু প্রকল্পে কৃষকরা বার্ষিক ১০ হাজার টাকা পাবেন।

Krishak Bandhu Prakalpa: সারা রাজ্য জুড়ে নতুন করে শুরু হয়েছে, দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। যারা নতুন করে কৃষকবন্ধু প্রকল্প ২০২২ এ আবেদন করতে চান তারা দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে গিয়ে আবেদন করতে পারবেন। ইতিমধ্যেই কৃষকবন্ধু প্রকল্পে আবেদন করবার জন্য নতুন একটি ফর্ম বের হয়েছে।

ফর্মের প্রথমেই নিজের নাম লিখতে হবে বড় হাতের ইংরেজিতে

তারপর জমির দলিলে যেভাবে লেখা আছে সেই ভাবে বাংলায় আবার নাম লিখতে হবে।

এরপর বাসস্থানের ঠিকানা, গ্রাম, গ্রাম পঞ্চায়েত, পোস্ট অফিস, ব্লক, থানা, জেলার নাম এইসব তথ্য বাংলা অথবা ইংরেজীতে পূরণ করতে হবে।

এর পরে, পিতা/স্বামীর নাম লিখতে হবে। আবেদনকারীর জন্মতারিখ, বয়স (১/১/২০২২ এর হিসাবে), লিঙ্গ, শ্রেণী অথবা কাস্ট, কৃষকের ধরণ( মালিক/ বর্গাদার/ পাট্টাদার), আবেদনকারী কৃষকের মোবাইল নাম্বার ( যে মোবাইল নাম্বারটি ব্যাংক একাউন্ট ও আধার কার্ডের সঙ্গে লিংকড), বিকল্প মোবাইল নাম্বার, আধার কার্ড নাম্বার, ভোটার কার্ড নাম্বার এইসব তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।

এর পরেই কৃষিজমির তথ্য পূরণ করতে হবে। যার মধ্যে

১) ক্রমিক নম্বর

২) জেলা

৩) ব্লক

৪) মৌজা

৫) জে. এল. নং

৬) খতিয়ান নং

৭) চাষযোগ্য জমির পরিমাণ (একরে)

8) মোট চাষযোগ্য জমির পরিমাণ (একরে) দিয়ে পূরণ করতে হবে।

এরপর পূরণ করতে হবে ব্যাংকের তথ্য।

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট অনুযায়ী আবেদনকারীর নাম (ইংরেজিতে) লিখতে হবে

অ্যাকাউন্ট নাম্বার

IFSC কোড

ব্যাংকের নাম

ব্রাঞ্চের নাম লিখতে হবে

অ্যাকাউন্টের ধরন (সেভিংস/ কারেন্ট) এসব তথ্য পূরণ করতে হবে।

ব্যাংকের সংযুক্তি নথি

ব্যাংকের পাস বই(ফটো সহ)/ বাতিল চেক টিক চিহ্ন দিতে হবে।

এরপর পূরণ করতে হবে নমিনির তথ্য

আবেদনকারী নমিনি হিসেবে যাকে রাখতে চাইছে তার নাম লিখতে হবে

নমিনির সঙ্গে আবেদনকারীর সম্পর্ক

নমিনির পিতা/স্বামীর নাম

নমিনির জন্মতারিখ

বয়স

নমিনির অভিভাবকের নাম ( নমিনির বয়স ১৮ বছরের নীচে হলে) এসব পূরণ করতে হবে।

তার পরে, আবেদন কবে করা হচ্ছে অর্থাৎ ফরমটি পূরণ করে যেইদিন জমা দেবেন, সেই দিনের তারিখ এবং আবেদনকারীর স্বাক্ষর বা টিপসই দিয়ে পূরণ করতে হবে। এরপর প্রাপ্তিস্বীকার জায়গাটি অফিস থেকে পূরণ করে তার রিসিভ কপি আবেদনকারীকে দিয়ে দেওয়া হবে। সেই রিসিভ কপিটা আপনার কাছেই যত্ন করে রেখে দেবেন।

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের ফর্ম এর সঙ্গে যে যে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস

  1. ভোটার কার্ডের জেরক্স,
  2. আধার কার্ডের জেরক্স,
  3. ওয়ারিশ সার্টিফিকেট।
  4. জমির রেকর্ডের জেরক্স,
  5. ব্যাংক অ্যাকাউন্টের পাসব‌ইয়ের জেরক্স।

কৃষকবন্ধু প্রকল্পের নতুন ফর্ম: krishak bandhu application form 2022 pdf



সম্পর্কিত পোস্ট